কুসুম্বা মসজিদ – নওগাঁ

কুসুম্বা মসজিদ বাংলাদেশের নওগাঁ জেলার মান্দা থানার কুসুম্বা গ্রামের একটি পুরাতন মসজিদ। ধূসর পাথরের মসজিদটি কুসুম্বা দীঘির পশ্চিম পাড়ে অবস্থিত। মসজিদের প্রবেশদ্বারে স্থাপিত ফলকে মসজিদটির নির্মাণ তারিখ লেখা আছে হিজরি ৯৬৬ (১৫৫৪-১৫৬০ খ্রি.)। আফগান শাসনের শূর রাজবংশের শেষ শাসক গিয়াসউদ্দিন বাহাদুর শাহের শাসনামলে সুলাইমান এই মসজিদটি নির্মাণ করেন।

মসজিদটি ৫৮ফুট লম্বা এবং ৪২ফুট। ফুট চওড়া। দুই সারিতে 6টি গোলাকার গম্বুজ রয়েছে। মসজিদে পাতার নকশা রয়েছে। প্রাচীর ঘেরা মসজিদের প্রধান প্রবেশদ্বারে একজন প্রহরী ছিল। মসজিদটিতে ইটের কারুকার্য, সামান্য বাঁকানো কার্নিস এবং সংলগ্ন কোণার টাওয়ার রয়েছে।মসজিদটির স্থাপত্য বাঙালি স্থাপত্য দ্বারা প্রভাবিত।

মসজিদের মূল কাঠামো ইটের তৈরি হলেও পুরো দেয়াল ও ভেতরের খিলানগুলো পাথরের আবরণে আবৃত। মসজিদের স্তম্ভ, ভিত্তি মঞ্চ, মেঝে ও দেয়াল পাথর দিয়ে তৈরি। মসজিদটি আয়তাকার এবং তিনটি উপসাগর ও দুটি আইল রয়েছে। এর পূর্ব দিকে তিনটি এবং উত্তর-দক্ষিণ দিকে একটি প্রবেশপথ রয়েছে। মসজিদের কেন্দ্রীয় মিহরাব পশ্চিম দেয়াল থেকে বিচ্ছিন্ন। পশ্চিম দেয়ালের দক্ষিণ-পূর্ব দিকে এবং কেন্দ্রীয় প্রবেশপথ বরাবর দুটি মিহরাব রয়েছে, যা মেঝের সমান্তরাল।

উত্তর-পশ্চিম কোণে উপসাগরের মিহরাবটি একটি উঁচু বেদিতে স্থাপন করা হয়েছে। এখানে মোট ৩টি মিহরাব রয়েছে, সবগুলোই কালো পাথরের তৈরি। মসজিদের সামনে ২৫.৮৩ একের  ধারণক্ষমতার একটি বিশাল জলের ট্যাঙ্ক রয়েছে। মিহরাবটি আঙ্গুর ও লতার নকশা দিয়ে খোদাই করা হয়েছে।

কিভাবে যাব:

আপনি ঢাকা থেকে রাজশাহী বাসে করে রাজশাহী-নওগাঁ মহাসড়কের পাশে কুসুম্বা মসজিদে যেতে পারেন।

Leave a Comment