কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত – কক্সবাজার

কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত

কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত (Cox’s Bazar beach) পৃথিবীর দীর্ঘতম অবিচ্ছিন্ন সমুদ্র সৈকত (sea beach)। ১২০ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের এই সৈকতটির বৈশিষ্ট্য হল যে পুরো সৈকতটি বালুকাময়, কোনও কাদা নেই।

মানুষ প্রাকৃতিক সৌন্দর্য দেখতে বের হয় একটু শান্তির খোঁজে। পর্যটক হিসেবে আপনি যেকোনো জায়গা থেকে আসতে পারেন।

আপনার পরিবারের সাথে আপনি কম খরচে বিভিন্ন দর্শনীয় স্থান পরিদর্শন করতে পারেন। তবে ভিন্ন জগত উপভোগ করতে চাইলে কক্সবাজার থেকে সমুদ্রসৈকত ঘুরে আসতে পারেন।

পৃথিবীর দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকত কক্সবাজার তার প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের সাথে আলাদা। এই দীর্ঘ সমুদ্র সৈকতকে ঘিরে প্রাচীন ঐতিহ্য এবং আকর্ষণের জন্য প্রতি বছর বিপুল সংখ্যক পর্যটক কক্সবাজারে ভিড় করে।

আর শুধু সমুদ্র সৈকতই নয়, দেখার মতো বেশ কিছু জায়গাও রয়েছে।

দিগন্তে বালির বিস্তীর্ণ বিস্তৃতি, কালো মেঘের সারি, সমুদ্র সৈকতে আছড়ে পড়া ছোট-বড় ঢেউ, নৌকা ও ট্রলার নিয়ে জেলেদের কোলাহল, ভোরের আকাশে পূর্ব পাহাড়ের আড়াল থেকে ব্রোঞ্জের থালার মতো উদিত সূর্য, আর সন্ধ্যায় সূর্যাস্তের জাদুকরী আকৃতি দেশের সব সৌন্দর্য।

কক্সবাজার দক্ষিণ-পূর্ব উপকূলে বিশ্বের দীর্ঘতম অবিচ্ছিন্ন সমুদ্র সৈকত।

আপনি যদি দেশের যেকোন জায়গায় ভ্রমণের পরিকল্পনা করেন, আপনি দেখতে পাবেন কক্সবাজার নামটি প্রথমে আসে।

শুধু দেশীয় পর্যটকই নয়, প্রতি বছর দেশ-বিদেশ থেকেও হাজার হাজার পর্যটক আসেন এই সমুদ্র সৈকতে। দেখা যায় সঠিক তথ্যের অভাবে এবং সঠিক ভ্রমণ পরিকল্পনার অভাবে আমরা অনেকেই কক্সবাজার ভ্রমণের ১০০% মূল্যবান হয়ে উঠতে পারি না।

কক্সবাজার শহর থেকে বদরমোকাম এলাকা পর্যন্ত প্রধান সমুদ্র সৈকত এলাকা ১২০ কিলোমিটার দীর্ঘ। কক্সবাজার যেতে চাইলে চট্টগ্রাম শহর থেকে দক্ষিণে কক্সবাজারের দূরত্ব ১৫২ কিলোমিটার এবং ঢাকা থেকে ৪১৪ কিলোমিটার। সড়ক ও আকাশপথে রাজধানী ঢাকা যাওয়া যায়।

আপনি এখানে হিমছড়ি এবং ইনানী সমুদ্র সৈকত দেখতে পারেন। এই দুটি আকর্ষণীয় স্থান কক্সবাজার থেকে ১২-২২ কিলোমিটারের মধ্যে।

কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত ভ্রমন

পর্যটকদের জন্য সমুদ্র সৈকত বাইক, জেট স্কিস, ঘোড়ায় টানা গাড়ি বা ঘোড়ায় টানা গাড়ি অফার করে যারা এই কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত ভ্রমন করতে আসলে(cox bazar samudra saikat)।

সৈকতে অনেক চেঞ্জিং রুম, বাথরুম, টয়লেট স্থাপনের কারণে পর্যটকদের স্বাভাবিক ডাকে সাড়া দিতে কোনো সমস্যা হয় না।

কক্সবাজার শহর পর্যটন মৌসুমে প্রাণবন্ত হয়ে ওঠে কারণ পর্যটকরা বালিয়াড়ি সমুদ্র সৈকতে বিভিন্ন ধরনের শামুক ঝিনুকের প্রবাল সমৃদ্ধ, আধুনিক হোটেল, মোটেল কটেজ, নতুন সাজে সজ্জিত বার্মিজ মার্কেট ঘুরে বেড়ায়।

কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতকে সুন্দর করার জন্য বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশন এবং স্থানীয় সী-বীচ ম্যানেজমেন্ট কমিটির কার্যক্রম দৃশ্যমান।

পুরানো ভেং ঝিনুক বাজারের আদলে নতুন নির্মিত আধুনিক ঝিনুক বাজার ‘বিচ পার্ক মার্কেট’ অবশ্যই দেখার মতো।

প্রতিটি মার্কেটে আটটি করে দোকান নির্মাণের জায়গা থাকলেও খুচরা বিক্রেতারা নিজেদের চুক্তিতে আটটি দোকান ষোল, বিশটি দোকান ঘর করেছেন।

এর পাশেই একই ধরনের আরও তিনটি ছাতা মার্কেট নির্মাণাধীন রয়েছে।

শামুকের খোসা এবং প্রবালের দোকান ছাড়াও এই মার্কেটগুলিতে বার্মিজ পণ্য, প্রসাধনী, ফাস্ট ফুড, ফ্রিজ কর্নার, ড্রায়ার, স্টুডিও, মোবাইল শপ ইত্যাদি রয়েছে।

সমুদ্র সৈকতের প্রবেশমুখে কক্সবাজার জেলা পরিষদের আর্থিক সহায়তায় ২৬টি দোকানসহ একটি দর্শনীয় বিচ গার্ডেন অ্যানেক্স পার্ক ও ঝিনুক মার্কেট তৈরি করা হয়েছে।

বাগানের সামনে জেলা পরিষদের অর্থায়নে ও সমুদ্র সৈকত ব্যবস্থাপনা কমিটির তত্ত্বাবধানে লাবনী পয়েন্টে জেলা প্রশাসনের একটি দ্বিতল ওয়াচ টাওয়ার ও স্থায়ী উন্মুক্ত মঞ্চ নির্মাণ করা হয়েছে।

কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত একটি মায়াবী ও সুন্দর সমুদ্র সৈকত। প্রতিদিন, প্রতি মুহুর্তে রূপ বদলায়।

শীত-বর্ষা-বসন্ত-গ্রীষ্ম এমন কোনো ঋতু নেই যখন সমুদ্র সৈকত একরকম। সকালে এক পথ আর বিকেলে।

গোধূলিতে সমুদ্র সৈকতের বাতাসের অবস্থা এবং রাতের আবহাওয়ার মধ্যে একটি বড় পার্থক্য রয়েছে।

এ কারণেই ক্যাপ্টেন কক্স সমুদ্র সৈকত দেশি-বিদেশি পর্যটকদের কাছে এত মূল্যবান এবং জনপ্রিয়।

তারা সমুদ্র সৈকতকে আলিঙ্গন করতে, স্নান করতে, এর সৌন্দর্য পুরোপুরি উপভোগ করতে এবং একটি আদি, নির্মল এবং নিরাপদ পরিবেশে তাজা বাতাস শ্বাস নিতে আসে।

 

কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতের দৈর্ঘ্য কত

বিশ্বের সবচেয়ে দীর্ঘ সমুদ্র সৈকত কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত যার দৈর্ঘ্য হল ১২০ কিমি। প্রচলিত তথ্য অনুযায়ী এটি ১৫৫ কিলোমিটার হলেও বাংলাদেশ পর্যটন কর্পোরেশনের সমীক্ষা অনুযায়ী এটি ১২০ কিলোমিটার বলে বেরিয়ে এসেছে।

কক্সবাজার যাওয়ার উপযুক্ত সময়

কক্সবাজারের উচ্চ মৌসুম অক্টোবর থেকে মার্চ পর্যন্ত। বৃষ্টি কম হওয়ায় এই মুহূর্তে বেশি পর্যটক আসে।তাই কক্সবাজার যাওয়ার উপযুক্ত সময় এটাকেই বলা হয়।

উপরন্তু, সৈকত যখন ঠান্ডা হয় তখন সুন্দর হয়, কিন্তু ব্যস্তও হয়। অফ-সিজন হলেও দুই ঈদ ও তিনদিন বন্ধ থাকার পর প্রচুর পর্যটক রয়েছে।

বুকিং না দিয়ে এই সময়ে যাওয়া ঠিক নয়। আউট অফ সিজন হোটেলগুলি ৩০% থেকে ৬০% পর্যন্ত ছাড় দেয়৷

এছাড়া বর্ষাকালে ঢেউ অনেক বড় হয়। সিন্ট মার্টেনের জাহাজ সাধারণত অক্টোবর থেকে এপ্রিল পর্যন্ত চলে। সেন্ট মার্টিন জাহাজে যেতে চাইলে ওই সময় যাওয়া যায়।

কক্সবাজার হোটেল ভাড়া

বর্তমানে কক্সবাজারের হোটেলগুলোর ধারণক্ষমতা প্রায় দেড় লাখ। তাই বুকিং না করলেও হোটেল পাওয়ার সম্ভাবনা আছে। কিন্তু ডিসেম্বরের শেষে এবং নতুন বছরের শুরুতে এই ঝুঁকি নেওয়া ঠিক নয়।

মনে রাখবেন অফ সিজনে হোটেলের রেট অর্ধেকেরও কম দাম হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। সুযোগ থাকলে কক্সবাজারে গিয়ে হোটেলের সাথে আলোচনা করে হোটেল খোঁজা ভালো।

রিকশাওয়ালা বা সিএনজি ওয়ালার পরামর্শে হোটেল খোঁজা উচিত নয়। এখন প্রায় সব হোটেলেরই ফেসবুক পেজ বা ওয়েবসাইট আছে, সেখান থেকে আপনি প্রথমে তাদের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন।

তবে ১৫ ডিসেম্বর থেকে ১৫ জানুয়ারী পর্যন্ত বুক করা ভাল। এছাড়াও, আপনি যদি সপ্তাহের দিনগুলিতে যান, আপনি সাপ্তাহিক ছুটির তুলনায় বেশি ছাড় পাবেন।

ভাড়ার জন্য কয়েকটি অ্যাপার্টমেন্টও রয়েছে। আপনি যদি একটি বড় পরিবারের সাথে ভ্রমণ করেন তবে এই ধরণের অ্যাপার্টমেন্ট আপনার জন্য আরও উপযুক্ত হতে পারে।

কক্সবাজার হোটেল ভাড়া ৭৫০০ টাকা থেকে ৮০,০০০ টাকা পর্যন্ত রয়েছে। এছাড়া কটেজ ভাড়া ১২০০০ টাকা থেকে শুরু করে ৩৬০০০ টাকা পর্যন্ত। ২/৩/৪ বেডরুমের এসি/নন এসি, রান্নাঘর সহ এই ধরনের ফ্ল্যাটের দাম প্রতিদিন ২০০০ থেকে ১৫০০০ টাকা।

 

কক্সবাজারের হোটেল সমূহ ও ভাড়া

রয়্যাল টিউলিপ সী পার্ল বিচ রিসোর্ট: বিশ্বের বৃহত্তম সমুদ্র সৈকত কক্সবাজারের ইনানী সৈকতে পাঁচ তারকা হোটেলটি নির্মিত হয়েছে। সেখানে থাকতে হলে প্রতি রাতে রুম ভাড়া দিতে হবে ১২ হাজার থেকে ১ লাখ ১৮ হাজার টাকা। মোবাইলঃ 01970660066.

সাইমন বিচ রিসোর্ট: প্রতি রাতে রুমের ভাড়া ১০৫০০ টাকা থেকে ৪৪০০০ টাকা পর্যন্ত। এটি কলাতলী মেরিন ড্রাইভ সড়কে অবস্থিত। মোবাইলঃ 01755691917।

লং বিচ হোটেলঃ কলাতলীর এই হোটেলে থাকতে হলে প্রতি রাতে রুম ভাড়া দিতে হবে ৬,৫০০ থেকে ৪০,০০০ টাকা। মোবাইলঃ 01755660051।

ওশান প্যারাডাইস হোটেল অ্যান্ড রিসোর্ট: কলাতলীর হোটেল-মোটেল জোনে এই হোটেলের রুমের রেট প্রতি রাত ৮,০০০ থেকে ১৭,০০০ টাকা। মোবাইলঃ 01938846761।

সিগাল হোটেল: এটি সুগন্ধা পয়েন্টে অবস্থিত। প্রতি রাতের রুম ভাড়া ৫৫০০ টাকা থেকে ৪০,০০০ টাকা। মোবাইলঃ 01766666530।

হোটেল দ্য কক্স আজ: প্রতি রাতে রুমের ভাড়া ৭৫০০ টাকা থেকে ৪০০০০ টাকা পর্যন্ত। এটি কলাতলী সড়কে অবস্থিত। মোবাইলঃ 01755598449।

হোটেল সী প্যালেস: কক্সবাজার জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে প্রায় ৩ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত এই হোটেলের রাতের ভাড়া ৩৫০০ থেকে ১৭০০০ টাকা। মোবাইলঃ 01714652227।

প্রসাদ প্যারাডাইস: এই নিউ বিচ রোড হোটেলে প্রতি রাতে ন্যূনতম ৪৫০০ রুপি থাকার খরচ। যোগাযোগ ব্যক্তি: 01556347711।

হোটেল সি ক্রাউন: মেরিন ড্রাইভ রোডের এই হোটেলের ভাড়া ৪০০০ টাকা থেকে শুরু করে ৪০০০০০ টাকা পর্যন্ত। মোবাইলঃ ০১৮৩৩৩৩১৭০৩।

হোটেল সি ওয়ার্ল্ড: প্রতি রাতের ভাড়া ২৫০০ টাকা থেকে ১৬০০০ টাকা পর্যন্ত। হোটেলটি লাবনী পয়েন্টে অবস্থিত। মোবাইলঃ 01938817501।

সার্ফ ক্লাব রিসোর্ট: রুম ভাড়া প্রতি রাতে ৬০০০ টাকা। যোগাযোগ ব্যক্তি: 01777786232।

হোটেল সি কক্স: প্রতি রাতের ভাড়া ৩০০০ টাকা থেকে 8,000 টাকা পর্যন্ত। মোবাইলঃ 01840477707।

মোটেল লাবণী: লাবনী পয়েন্টে এই হোটেলের ভাড়া ১০০০ টাকা থেকে ৫৫০০ টাকা পর্যন্ত। মোবাইল: ০১৮১৫৪৬৯১১৩।

মোটেল প্রবাল: ৫০০ থেকে ২৫০০ টাকায় এই মোটেলে রাত কাটাতে পারবেন। যোগাযোগ ব্যক্তি: 0341-6211।

রেট অন্যান্য হোটেল রেস্টহাউসের হার প্রায়ই স্থির করা হয়। তবে কক্সবাজার ভ্রমণের আগে ফোন করে বুকিং মানি পাঠিয়ে আবাসন নিশ্চিত করা ভালো। সাথে সাথে পরামর্শ করে রুম ভাড়া করা যায়।

কক্সবাজার নরমাল হোটেল

কক্সবাজার নরমাল হোটেল এবং বিলাসবহুল হোটেল উভয় ধরনের রয়েছে।প্রতি রাতের জন্য ভাড়া ৮০০ টাকা থেকে শুরু করে ১০,০০০ টাকা পর্যন্ত আছে। নিচের রেঞ্জ হতে আপনার বাজেট অনুসারে হোটেল বেছে নিতে পারেন।

৮০০ থেকে ,০০০ টাকা:
উর্মি গেস্ট হাউজ, ইকরা বিচ রিসোর্ট, হানিমুন রিসোর্ট, কোরাল রীফ, সেন্টমার্টিন রিসোর্ট, অভিসার, মিডিয়া ইন, কল্লোল, নীলিমা রিসোর্ট ইত্যাদি।

,০০০ থেকে ,০০০ টাকা:
হোটেল সী ক্রাউন, সী গাল, সী প্যালেস, নিটোল রিসোর্ট, বীচ ভিউ, কোরাল রীফ, আইল্যান্ডিয়া, ইউনি রিসোর্ট ইত্যাদি।

৬০০০ থেকে ১০,০০০ টাকা:
মারমেইড বিচ রিসোর্ট, ওশেন প্যারাডাইজ, কক্স টুডে, সায়মন বিচ রিসোর্ট, লং বীচ, হেরিটেজ ইত্যাদি।

কক্সবাজার হোটেল মোবাইল নাম্বার

পাঁচ তারকা হোটেল থেকে শুরু করে স্বল্প খরচে থাকার মতো সাধারন হোটেলও কক্সবাজারে রয়েছে।কক্সবাজার হোটেল মোবাইল নাম্বার নিচে দেওয়া হলো যাতে যোগাযোগ করে আপনার বাজেট অনুসারে হোটেল পছন্দ করতে পারেন।

রয়্যাল টিউলিপ সী পার্ল বিচ রিসোর্ট: 01970660066

সাইমন বিচ রিসোর্ট: 01755691917

লং বিচ হোটেলঃ 01755660051

ওশান প্যারাডাইস হোটেল অ্যান্ড রিসোর্ট: 01938846761

সিগাল হোটেল: 01766666530

হোটেল দ্য কক্স আজ: 01755598449

হোটেল সী প্যালেস: 01714652227

প্রসাদ প্যারাডাইস: 01556347711

হোটেল সি ক্রাউন: ০১৮৩৩৩৩১৭০৩

হোটেল সি ওয়ার্ল্ড: 01938817501

সার্ফ ক্লাব রিসোর্ট: 01777786232

হোটেল সি কক্স: 01840477707

মোটেল লাবণী: ০১৮১৫৪৬৯১১৩

মোটেল প্রবাল: 0341-6211

কক্সবাজার ট্যুর প্যাকেজ ২০২৩

কক্সবাজার ট্যুর প্যাকেজ ২০২৩ এর জন্য কাপল, ফ্যামিলি অথবা ফ্রেন্ডলি ট্যুর অর্গানাইজার এজেন্সি হতে নিতে পারেন।

একটি ট্রাভেল এজেন্সি হল একটি বেসরকারী প্রতিষ্ঠান বা সরকার পরিচালিত পরিসেবা।

লোকেরা ট্রাভেল এজেন্সির মাধ্যমে তাদের ফ্লাইটের টিকিট বুক করা বেছে নেয় কারণ তারা তাদের ভ্রমণকে সহজ করতে এবং তাদের সময় ও অর্থ বাঁচাতে সাহায্য করে।

আপনার সফরের ব্যবস্থা করার জন্য একটি শক্তিশালী ট্রাভেল এজেন্সিকে বেছে নেন।

সেরা ট্রাভেল এজেন্সি আপনাকে ভ্রমণের পরিকল্পনা করতে এবং সমস্ত বিবরণ ব্যাখ্যা করতে সহায়তা করবে।

তাছাড়া, তারা যাত্রীদের সাশ্রয়ী মূল্যের ফ্লাইটের টিকিটও দেবে।

ট্রাভেল এজেন্সিগুলি আপনার সময়সূচীর উপর নির্ভর করে আপনাকে বিভিন্ন প্যাকেজ এবং পরিসেবা প্রদান করে থাকে। তাই ভ্রমনের আগে একটি ভালমানে ট্রাভেল এজেন্সির সাথে যোগাযোগ করে নিতে পারে।

একটি ট্রাভেল এজেন্সি হতে যে সেবা সমূহ পাবনে তা নিচে দেওয়া হলো।

  • বহিরঙ্গন বিনোদন কার্যক্রম
  • ফ্লাইট রিজার্ভেশন বুকিং
  • ট্যুর ভিসা
  • হোটেল বরাদ্দকরণ
  • বাসস্থান
  • গাড়ী ভাড়া
  • ভ্রমণ বীমা
  • ফ্লাইট রিজার্ভেশন সঙ্ক্রান্ত জরুরী পরিষেবা
  • প্যাকেজ ট্যুর
  • ভিআইপি বিমানবন্দর লাউঞ্জ অ্যাক্সেস
  • পাবলিক ট্রান্সপোর্ট সময়সূচী

ট্রাভেল এজেন্সির তালিকা (Travel Agency)

আপনাদের ভ্রমণ সুবিধার জন্য বাংলাদেশের ট্রাভেল এজেন্সির তালিকা নিচে দেওয়া হলো।

Travelzoo Bangladesh Ltd

Address: Happy Arcade Shopping Mall, 2nd Floor,

Suite 33, Dhanmondi, Dhaka 1205,

Phone:+8801618181313

Www.Zoo.Family@Gmail.Com

Website: Www.Zoo.Family

Facebook Page: Travelzoo Bangladesh Ltd

 

Airways Office

Address: Happy Arcade Shopping Mall, 2nd Floor,

Suite 34, Dhanmondi, Dhaka 1205,

Phone:+8801768232311

Airwaysoffice@Gmail.Com

Website: Www.Airwaysoffice.Com

 

Dynamic Travels

House-21, Road-17, Flat-A7, (7th Floor), Boshoti

Horizon, Banani C/A, Dhaka

Tel: 88-02-98822022, 9820217

Emai: Mahbub@Dynamic.Com.Bd,

Sagar@Dynamic.Com.Bd

 

International Travel Corporation

Land Mark (10th Floor)

12-14 Gulshan C/A, Dhaka – 1212

Tel: 88-02-8821645, 8824445, 9885479-80 Fax:

88-02-8829421

Email: Mobassher@Itc-Bd.Com

 

Branch Office

International Travel Corporation

Hotel Agrabad

Agrabad Arcade, Chittagong

Tel: 88-031-721192, 711325

Ext: 4156, Fax: 88-031-721192

Email: Javed@Itc-Bd.Com

 

Victory Tvls

71, Motijheel Banani,

C / A (Ground Floor) Dhaka – 1000

Tel: 88-02-9569608-9, 9550916

Email: Jewel_Victory@Live.Com

 

Branch Office

54, Kemal Ataturk Avenue,

2nd Floor, Banani, Dhaka

Tel: 88-02-9857321, 8810427, 8829686, 8824821

Email:Sb.Snal@Gmail.Com

 

Heritage Air Express

Motijheel & Old Dhaka

Globe Chamber, 1st Floor, 104, Motijheel

C/A, Dhaka-1000

Phone Number: 88 09612112233

Email Address: Info@Heritagebd.Com

 

Talon Corporation

House# 11/B (3rd Floor), Road # 130 Gulshan-1,

Dhaka-1212, Bangladesh

Contact # 9896817,9896724,9894028

Email:Taloncorporation8@Gmail.Com

 

Hajee Air Travels

Motijheel,City Heart (8th Floor),

Suit No: 9 / 4, Toyenbee Circular Road,

Dhaka 1000

 

Galaxy Travel International

Gulshan-1, Motijheel

21, Dilkusha C/A, Dhaka-1000

Tel: 88-02-9563972-3, 9559654

Email: Supv.Travel@Galaxybd.Com

 

Branch Office

Taj Cassilina (2nd Floor),

25, Gulshan Avenue, Dhaka-1212

Tel: 88-02-8850004, 8822465

Email:Supv.Travel@Galaxybd.Com

 

Horizon Express Ltd

Gulshan-1, Motijheel

Plot-60/D, Road-131, Flat-3 (2nd Floor) Gulshan South,

Gulshan-1, Dhaka-1212

Tel: 88-02-9889593

(Direct), 9885020, 8822193, 8810343, 9889396

Email: Hasan.Salahuddin13@Gmail.Com

 

Branch Office

71 Motijheel C/A, Dhaka – 1000

Contact # 88-02-7165653, 7165584

Email: Wasimulbd@Gmail.Com

 

Amar Desh – আমার দেশ

অফিসের ঠিকানাঃ পুনাশি ভিলা ,বাড়ি -১৫০, ব্লক-ই, রোড -১০ , বনানী, ঢাকা-১২১৩, বাংলাদেশ।

মোবাইলঃ ০১৯৭৯-২২৮৮০১, ০১৯৭৯-২২৮৮০৯, ০১৬১০-১০৭৩৭৩।

ইমেইলঃ itsholidaysbd@gmail.com

ওয়েবসাইটঃ www.itsholidaysltd.com/amar-desh/

ফেসবুক পেজঃ https://www.facebook.com/amardesh.its

ফেসবুক গ্রুপঃ https://www.facebook.com/groups/1309594149435923

 

বাংলাদেশের শীর্ষ অনলাইন ট্রাভেল এজেন্ট

 

Travelzoo Bangladesh Ltd

Address: Happy Arcade Shopping Mall,

2nd Floor, Suite 34, Dhanmondi, Dhaka 1205,

Phone:+8809638275538

website

www.zooholiday.com

www.travelnews.com.bd

www.zoo.family@gmail.com

www.zoo.family

www.zooinfotech.com

 

Airways Office

Address: Happy Arcade Shopping Mall,

2nd Floor, Suite 34, Dhanmondi, Dhaka 1205,

Phone:+8801768232311

airwaysoffice@gmail.com

website: www.airwaysoffice.com

Flight Expert

Address: 90/1Motijheel City Centre

Level 25-B-1, Lift 26

Dhaka 1000, Bangladesh

www.flightexpert.com

 

Gozayaan

Address: Level #2, Plot#80, Road#17/A,

Banani, Dhaka-1213

www.gozayaan.com

 

ShareTrip

Address:Gulshan,House 45, Block E Rd No 13C,

Dhaka 1213

www.sharetrip.net

 

ঢাকা থেকে কক্সবাজার ভাড়া কত

ঢাকা থেকে কক্সবাজার ৪১৪ কিলোমিটার বাসে যেতে ১০ থেকে ১২ ঘন্টা সময় লাগে এবং চট্টগ্রাম থেকে ১৫২ কিলোমিটার বাসে যেতে ৪ ঘন্টা সময় লাগে। ঢাকা থেকে সরাসরি বাস ও বিমানে কক্সবাজার যাওয়া যায়। ট্রেনে সরাসরি কক্সবাজার যাওয়ার আপাতত কোনো ব্যবস্থা নেই।

সেক্ষেত্রে আপনাকে ঢাকা থেকে চট্টগ্রামের ট্রেনে এসে তারপর চট্টগ্রাম থেকে কক্সবাজার যেতে হবে অন্য কোন উপায়ে।নিচে বাস, ট্রেন ও বিমানের ভাড়া এবং সময়সূচী দেওয়া হলো।

 

ঢাকা টু কক্সবাজার বাস ভাড়া

ঢাকা টু কক্সবাজার যাতায়াতের সবচেয়ে জনপ্রিয় মাধ্যম হল বাস।

রাজধানী ঢাকার সায়েদাবাদ, গাবতলী ও মহাখালী বাস টার্মিনালসহ বিভিন্ন স্থান থেকে ঢাকা থেকে কক্সবাজার রুটে বিভিন্ন ধরনের এসি, নন-এসি বাস চলাচল করে। ঢাকা টু কক্সবাজার নন এসি বাস ভাড়া ৮০০-১০০০ টাকা এবং এসি বাস ভাড়া ১০০০–২৫০০ টাকা।

উল্লেখ যোগ্য এসি, নন-এসি বাসের মধ্যে আছে হানিফ (01713-402673),দেশ ট্রাভেলস (01705- 430566),  গ্রীন লাইন (0447-8660011),তুবা লাইন (01876-005687), শ্যামলী পরিবহন (02-7541336, 02-7541336), সোহাগ পরিবহণ (01926-699367), এনা (01760-737650), সেইন্টমার্টিন পরিবহন (01762-691341), ইউনিক (01963-622236), রয়েল কোচ (01872-723236), ইয়ার ৭১ (01917-078807), ঈগল পরিবহন (01793-328045), টি আর ট্রভেলস (02-8031189), ইকোনো (01992-017915) এবং এস আলাম সার্ভিস (02-9002702)।

 

ঢাকা থেকে কক্সবাজার ট্রেন ভাড়া

ট্রেনে সরাসরি কক্সবাজার যাওয়ার আপাতত কোনো ব্যবস্থা নেই।

ট্রেনে কক্সবাজার ভ্রমণ করতে চাইলে ঢাকা কমলাপুর কিংবা বিমানবন্দর রেলস্টেশান হতে আন্তঃনগর সোনার বাংলা, সুবর্ন এক্সপ্রেস, তূর্ণা-নিশীথা, মহানগর গোধূলী/প্রভাতী ট্রেনে চট্টগ্রাম যেতে পারেন।

তারপর চট্টগ্রাম শহরের নতুন ব্রিজ এলাকা অথবা দামপাড়া বাস্ট স্ট্যান্ড থেকে কক্সবাজার যাওয়ার বিভিন্ন বাস পেয়ে যাবেন।

ঢাকা টু চট্টগ্রাম ট্রেনের সময়সূচী

এসি বাথ ১১৭৯ টাকা, এসি ৭৮৮ টাকা, স্নিগ্ধা ৬৫৬ টাকা, প্রথম বাথ ৬৮৫ টাকা, প্রথম আসন ৪৬০ টাকা, শোভন চেয়ার ৩৪৫ টাকা এবং শোভন ২৮৫ টাকা ।

রেলওয়ে ষ্টেশন সম্পর্কিত তথ্য

কমলাপুর রেলওয়ে ষ্টেশন
ফোন: ০২-৯৩৫৮৬৩৪, ৯৩৩১৮২২,৮৩১৫৮৫৭
মোবাইল: ০১৭১১-৬৯১৬১২

বিমানবন্দর রেলওয়ে ষ্টেশন
ফোন: ০২-৮৯২৪২৩৯
ওয়েবসাইট: www.railway.gov.bd

এ ছাড়া চট্টগ্রামের শাহ আমানত বিমানবন্দর থেকে কক্সবাজার পর্যন্ত বাংলাদেশ বিমানের ৫টি ফ্লাইট পরিচালনা করছে। চট্টগ্রাম থেকে কক্সবাজার ফ্লাইটের ভাড়া 2,100 টাকা থেকে 3,900 টাকা।

 

ঢাকা টু কক্সবাজার বিমান ভাড়া

ঢাকা থেকে কক্সবাজার যেতে ৭ থেকে ১০ ঘন্টা বা তার বেশি সময় লাগে, তাই অনেকেই এখন সময় বাঁচাতে বিমানে ভ্রমণ করেন। আপনি ঢাকা থেকে মাত্র ৪৫ মিনিট থেকে ১ঘন্টার মধ্যে কক্সবাজার বিমানবন্দরে পৌঁছাতে পারেন। বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ এয়ারলাইন্সের ভালো সার্ভিস এবং সহজলভ্যতার কারণে এয়ারলাইন এখন খুবই জনপ্রিয়।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স, রিজেন্ট এয়ারওয়েজ, নভোএয়ার এবং ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্স ঢাকার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ঢাকা থেকে কক্সবাজার রুটে প্রতি সপ্তাহে ৫৫টি সরাসরি ফ্লাইট পরিচালনা করে।

ঢাকা টু কক্সবাজার বিমান টিকেটের মূল্য

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ৩,৫০০-১১,০০০ টাকা, নভোএয়ার ৩,৯০০-৯,০০০ টাকা ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স ৪,২০০ টাকা – ১০,৫০০ টাকা, রিজেন্ট এয়ার ওয়েজ ৩,৯৯৯ টাকা – ৯,৮০০ টাকা।

এ ছাড়া চট্টগ্রামের শাহ আমানত বিমানবন্দর থেকে কক্সবাজার পর্যন্ত বাংলাদেশ বিমানের ৫টি ফ্লাইট পরিচালনা করছে। চট্টগ্রাম থেকে কক্সবাজার ফ্লাইটের ভাড়া 2,100 টাকা থেকে 3,900 টাকা।

বি দ্রঃ বিমান ভাড়া সবসময় পরিবর্তনশীল। যেকোনো সময় ভাড়া পরিবর্তন হতে পারে।

 

কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত ভ্রমণে দর্শনীয় স্থান

 

কক্সবাজার দর্শনীয় স্থান

 

হিমছড়ি,

কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত,

ইনানী বী,

মহেশখালী দ্বীপ,

মাথিনের কূপ,

মেরিন ড্রাইভ,

সোনাদিয়া দ্বীপ,

রামু বৌদ্ধ বিহার,

দরিয়া নগর,

রামু রাবার বাগান,

কুতুবদিয়া দ্বীপ,

সেন্টমার্টিন দ্বীপ ইত্যাদি।

 

আরও পড়ুন

রাজশাহী বিভাগ ভ্রমণ

ঢাকা বিভাগ ভ্রমণ

রংপুর বিভাগ ভ্রমণ

ময়মনসিংহ বিভাগ ভ্রমণ

সিলেট বিভাগ ভ্রমণ

খুলনা বিভাগ ভ্রমণ

বরিশাল বিভাগ ভ্রমণ

চট্টগ্রাম বিভাগ ভ্রমণ

 

1 thought on “কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত – কক্সবাজার”

Leave a Comment